আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে ব্যাপক গণসংযোগ রেজার

642
আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে ব্যাপক গণসংযোগ রেজার
আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে ব্যাপক গণসংযোগ রেজার

জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেধাবী পরিশ্রমী ছাত্রনেতা ছাত্র যুব ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা যার জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগকে সুসংগঠিত করে আসছে সেই ছাত্রনেতা জনাব আবু বক্কর সিদ্দিক (রেজা) আগামী ইউনিয়ন পরিষদের প্রার্থী হিসেবে ক্ষেতলাল উপজেলার আলমপুর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আলোচনার শীর্ষে তরুণ এই মেধাবী পরিশ্রমী ছাত্রনেতা। এবং পূর্ণ সমথর্ন দিয়েছেন ক্ষেতলাল তরুণ প্রজন্মের অহংকার ক্ষেতলাল উপজেলার গণমানুষের জনপ্রিয় নেতা ক্ষেতলাল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জননেতা মোস্তাকিম মন্ডল।রেজা বর্তমান জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

নির্বাচনী মাঠে একেবারে নতুন মুখ হলেও তিনি সবার পরিচিত মানুষ। এলাকার যে কোন মানুষ সমস্যায় পড়লে ছুটে যান তিনি ইউনিয়নের সকল বয়সী ও শ্রেনী পেশার মানুষের পরিচিত ও আপনজন রেজা এবার নৌকার মাঝি হতে চায়। মানুষের বিপদে ঘরে বসে থাকতে পারেন না তিনি,ছুটে যান বিপদগ্রস্থ মানুষের পাশে। বিয়ে স্বাদি,অভাবী,কাজহীন মানুষকে কাজ দেয়া,যুবসমাজকে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত,মাদকমুক্ত ও ক্রীয়ামূখী করে গড়ে তোলা,এলাকার উন্নয়নে অংশগ্রহণ করা।

তিনি বিশ্বাস করেন শুধু ব্যক্তিগত সহযোগীতা দিয়ে সমাজ ও সমাজের মানুষের সব সমস্যা সমাধান করা সম্ভব না। তাই বৃহৎ পরিসরে সমাজের সার্বিক উন্নয়ন করতে এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছাত্রনেতা সমাজ সেবক আবু বক্কর সিদ্দিক রেজা এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে মাঠে নেমেছেন। রেজা নির্বাচিত হলে সকল কর্মকান্ডে জনগনের অংশ গ্রহন ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করাসহ আধুনিক ইউনিয়ন গঠন করতে চান একইসাথে মাদক,সন্ত্রাস ও দুর্ণীতি প্রতিরোধসহ জনসচেতনতামুলক কর্মসুচি গ্রহন করতে চান তিনি।

এলাকার বিভিন্ন বয়সের মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, দক্ষ সংগঠক ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারনে তারা এবার রেজা কে ভোট দিতে চায় আলমপুর ইউনিয়নের উন্নয়নের জন্য তার বিকল্প নাই।ইতিমধ্যে ইউনিয়নের যুবসমাজ,ছাত্রসমাজ সহ সাধারণ জনগণ এবার দক্ষ সংগঠক রেজার পক্ষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ করতে মাঠে নেমেছেন।শুধু যুব সমাজ নয়, ছাত্র শিক্ষক,শ্রমিক জনতা,বৃদ্ধবণিতাসহ সকল শ্রেনী-পেশার মানুষ এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রেজাকে নৌকার মাঝি হিসেবে চায়। নির্বাচনে অংশগ্রহন প্রসঙ্গে আবু বক্কর সিদ্দিক রেজা দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন কে বলেন আমি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সংগঠন, দেশরত্ন শেখ হাসিনার প্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত সারাদেশের মধ্যে উন্নয়নের রোলমডেল হবে আলমপুর ইউনিয়ন সন্ত্রাস,দূর্নীতি মাদক মুক্ত মডেল ইউনিয়ন হবে আলমপুর।

আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি সম্পন্ন ডিজিটাল ইউনিয়ন গঠনসহ সকল কর্মকান্ডে জনগনের অংশগ্রহন ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা আমার ল্ক্ষ্য।সৎ যোগ্য ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সর্বদা সোচ্চার রেজা আরো বলেন,দল আমাকে নৌকা প্রতীক দিলে অবশ্যই আমি আলমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবো।আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে অত্র ইউনিয়নে উন্নয়নের নব দিগন্ত সৃষ্টি হবে বলে প্রত্যাশা করছেন। আলমপুর ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়নে পরিণত করতে চাই সেইসাথে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে সহযোগী হতে চাই।দল আমাকে নৌকা প্রতীক দিলে ইনশাআল্লাহ আমি অবশ্যই নির্বাচন করবো এবং বিজয়ী হবো।আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমি নৌকার মাঝি হতে চাই।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।