বগুড়ায় সাড়ে ৪ শতাধিক পথশিশুকে খাবার দিলো ‘পথের দিশা’

211
বগুড়ায় সাড়ে ৪ শতাধিক পথশিশুকে খাবার দিলো ‘পথের দিশা’
বগুড়ায় সাড়ে ৪ শতাধিক পথশিশুকে খাবার দিলো ‘পথের দিশা’

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া: বগুড়া শহরের চেলোপাড়া ও সেউজগাড়ী রেল স্টেশন বস্তিতে বসবাসকারী সাড়ে ৪ শতাধিক সুবিধা বঞ্চিত শিশুকে (পথশিশু) একবেলা রান্না করা খাবার দিয়েছে পথের দিশা ফাউন্ডেশন, বগুড়া। সংগঠনের উদ্যোগে শুক্রবার দুপুরে রেল স্টেশন বস্তিতে দুই শতাধিক সুবিধা বঞ্চিত শিশুর মাঝে খিচুড়ি ও ডিম বিতরণ করা হয়। দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া উপেক্ষা করে শিশুরা বস্তিতে অবস্থিত পথের দিশা ভাসমান স্কুলে জড়ো হয়। ঝিরিঝিরি বৃষ্টির মাঝেই শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

বৃষ্টিভেজা দিনে গরম খিচুড়ির সাথে ডিম পেয়ে খুশিতে ভরে ওঠে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মন। এর আগে সোমবার বিকেলে চেলোপাড়া রেললাইন বস্তির আড়াই শতাধিক সুবিধা বঞ্চিত শিশুকে রান্না করা খাবার দেওয়া হয়। এসময় ফেসবুক ফ্রেন্ডস্ সোসাইটি বগুড়া’র সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক প্রতীক ওমর, পথের দিশা ভাসমান স্কুলের সভাপতি প্রভাষক মহররম আলী, সাধারণ সম্পাদক শামীম আহম্মেদ, স্কুলের পরিচালক মোস্তফা মোঘল, মিদুল হাসান, জিয়াউর রহমান, গোলাম মোস্তফা, জুনিয়র আইনজীবি মাসুদুল হাসান টুকু ও এডভোকেট ইন্দ্রোজিৎ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, পথের দিশা ফাউন্ডেশন ২০১৬ সালে বগুড়া রেল স্টেশন সংলগ্ন বস্তিতে পথের দিশা ভাসমান স্কুল নামে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করে। বস্তির সুবিধা বঞ্চিত শিশুরা বিনামূল্যে এখানে লেখা পড়ার সুযোগ পায়। ক্লাস শেষে সবাইকে হাল্কা নাস্তা করানো হয়। শিক্ষার্থীদের বই, খাতা, কলম, স্কুলড্রেস স্কুল থেকে বিনামূল্যে প্রদান করা হয়। সেই সাথে ঈদে নতুন পোষাক, কুরবানীর ঈদে গোস্ত এবং শীতে কম্বল বিতরন করা হয়। করোনাকালে দুই দফা স্কুলের শিক্ষার্থীদের পরিবারের জন্য খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।