সাদুল্লাপুরের মেধাবী ছাত্র সাব্বির পলাশবাড়ীতে জাতীয় মহাসড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

253
জালাল উদ্দীন, সাদুল্লাপুর (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ- গাইবান্ধা পলাশবাড়ী পৌরশহরের মোহাম্মাদী মসজিদ সংলগ্ন জাতীয় মহাসড়কে ট্রাফিক পুলিশের অভিযান চলাকালে ভয়ে মটর সাইকেল ঘুরাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মটর সাইকেল চালক নিহত হয়।
নিহত মোটরসাইকেল চালক সাব্বির ইসলাম (১৮) আসিক সাদুল্লাপুরের ইদিলপুর ইউনিয়নের রাঘবেন্দ্রপুর (জীবনপুর) গ্রামের মোঃ রফিকুল ইসলাম এর পুত্র পলাশবাড়ী সরকারি কলেজের মেধাবী ছাত্র।
বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টায় সাব্বির ইসলাম তাঁর মোটর সাইকেল চালিয়ে ধাপেরহাট হয়ে  পলাশবাড়ী শহরের দিকে যাচ্ছিলেন।
এসময় শহরের সন্নিকটে দায়িত্বরত পুলিশ তাকে সিগনাল দিলে সে তাড়াহুড়ো করে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা কালে পিছনে থাকা অজ্ঞাত ট্রাক তাকে সজোরে ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেল ট্রাকের নিজে চলে গিয়ে চাকায় পিষ্ট হয়  ও মোটরসাইকেলের হ্যান্ডেল তার বুকের পাঁজরে ডুকে যায়।
স্থানীয়রা ও পুলিশ তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পাঠিয়ে দিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করে।
 নিহতের পরিচয় নিশ্চিত করে  হাইওয়ে পুলিশ পিকআপ যোগে তার লাশ গ্রামের বাড়ীতে পৌঁছে দেয়।
তার  দূরঘটনায়  মৃত্যু খবরে  স্বজন ও এলাকাবাসীর মাঝে নেমে আসে শোকের ছায়া। তার ব্যবহারিত  দুমরে মুচরে যাওয়া বাইকটি বর্তমানে   উদ্ধার করে পলাশবাড়ী  থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে।
এলাকাবাসীর ও স্থানীয়দের অভিযোগ এ দূর্ঘটনার জন্য ট্রাফিক পুলিশ দায়ী।
এবিষয়ে  ট্রাফিক পয়েন্টে দায়িত্বরত ট্রাফিক সার্জেন্ট আব্দুল আজিজ অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার  করে  বলেন, ট্রাফিকের পক্ষ থেকে তাকে কোন ভয়ভীতি দেখানো হয়নি বরং সে নিজে থেকেই এ দূর্ঘটনা ঘটিয়েছে।
পলাশবাড়ী থানা ওসি  জাতীয় মহাসড়কে  দূর্ঘটনায় সাব্বির নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।