পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না পলাশের

249
ফারমান আলী, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি :-  অনার্স প্রথম বর্ষে ইনকোর্স পরীক্ষা দিয়ে মোটরসাইকেল যোগে নওগাঁয় বাড়ি ফেরা হলো না নাট্যকর্মী পলাশ হোসেনের (২০)।
বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে নওগাঁ পত্নিতলা আঞ্চলিক সড়কের মহাদেবপুর তেরমাইল শ্যামপুর বাজারে ট্রাকের চাপায় মারা যান তিনি।
সড়ক দূর্ঘটনায় নিহতের প্রতি নওগাঁর সাংস্কৃতিক ও নাট্য ব্যক্তিত্বরা শোক প্রকাশ করেছেন।
নিহত পলাশ হোসেন নওগাঁ সদরের চকএনায়েত মহল্লার আইয়ুব হোসেনের ছেলে। তিনি পত্নিতলা উপজেলার নজিপুর সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষে পড়াশুনা করতেন। পড়াশুনার পাশাপাশি নওগাঁর নাট্য আন্দোলনের একজন সক্রিয় কর্মী ছিলেন।
নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পলাশ হোসেন বুধবার সকালে নওগাঁয় বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল যোগে কলেজে ইনকোর্স পরীক্ষা দিতে যান। পরীক্ষা শেষে নওগাঁ-পত্নিতলা আঞ্চলিক সড়ক দিয়ে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি নওগাঁয় ফিরছিলেন। পথে মধ্যে মহাদেবপুর উপজেলার তেরমাইল শ্যামপুর বাজারে বিপরীত থেকে আসা দ্রুতগামী একটি ট্রাক তাকে চাপা দিয়ে ঘাতক ট্রাকটি পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই পলাশ মারা যান। পরে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে থানা পুলিশে সংবাদ দেয়।
মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে থানা নেওয়া হয়েছে। তবে অজ্ঞাত ট্রাকটি সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।