শিবগঞ্জের জামুরহাটে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

364

রবিউল ইসলাম, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ-  বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার বুড়িগঞ্জ ইউপির জামুরহাটে তড়িঘরি করে অবৈধভাবে স্থাপনা নির্মান করে হাটের আকৃতি পরিবর্তনের অভিযোগ উঠেছে বর্তমান ইজারাদারের বিরুদ্ধে। এ সংক্রান্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, গত ২৪ ফেব্রুয়ারী শিবগঞ্জের জামুরহাট নতুন করে ইজারা দেওয়ার জন্য দরপত্র আহ্বান করলে দেলোয়ার নামের ব্যবসায়ী এহাট নতুন করে ১৬ লক্ষ টাকায় (ভ্যাটসহ) ইজারা পায়। কিন্তু পূর্বের ইজারাদার বগুড়া এন্টারপ্রাইজ এর খলিলের যোগসাজশে হাটের আকৃতি পরিবর্তন করে উজ্জ্বল, দেলোয়ার, জামিল, তছলিমসহ বেশ কিছু ব্যক্তি শেষ সময়ে এসে নতুন করে স্থাপনা নির্মান করে।

এতে করে ঐ হাটের অন্যান্য ব্যবসায়ী ও দোকানদারদের মধ্যে সমালোচনা শুরু হলে নতুন ইজারাদার দেলোয়ার হোসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগ করে। অভিযোগের বিষয়ে নতুন ইজারাদার দেলোয়ার বলেন, হাট ইজারার শেষ সময়ে এসে ব্যবসায়ীদের ধোকা দিয়ে অবৈধভাবে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য হাটের আকৃতি পরিবর্তন করে দোকানঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, আগামী ১লা বৈশাখ থেকে আমি হাট চালাবো, হাটের বর্তমান অবস্থা এমন হলে ইজারার টাকা তোলা অসম্ভবের হয়ে যাবে।

এ বিষয়ে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আলমগীর কবীর বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সচেতন একটি মহল বলেছে, ১০লক্ষ টাকা তোলা এ হাটে সম্ভব নয়, সেখানে এতো টাকা তুলবে কি ভাবে!

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।