শিবগঞ্জে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কেট থেকে লাগা আগুনে কাপড় পুড়ে ছাই

290

ঘরের কুরআন থাকলো অক্ষত

রবিউল ইসলাম, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ-  বগুড়ার শিবগঞ্জে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কেট থেকে লাগা আগুনে তার কাপড় পুড়ে ছাই, অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন গভির নলকুপের পাহাড়াদার নজরুল ইসলাম এবং ঐ ঘরে রক্ষিত থেকে গেল আল-কুরআন।

জানা যায়, শিবগঞ্জ পৌর এলাকা অর্জুনপুর গ্রামের মৃত ওছির উদ্দিন শেখের পুত্র গভির নলকুপের পাহাড়াদার ও খলিফা মোঃ নজরুল ইসলাম শিবগঞ্জ সরকারি পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় রোডের চকভোলাখাঁ ও তেঘরী গ্রামের রাস্তার মোড়ে দীর্ঘদিন থেকে রাতের বেল করো মাছুদুর রহমান চৌধুরীর গভির নলকুপ পাহাড়া ও লাইনম্যান হিসেবে কাজ করে আসছে।

একই সাথে রমজান মাসে সাধারণ মানুষের কিছু পোশাক তৈরীর ক্ষেত্রে অর্ডারকৃত কাপড় নিয়ে জীবিকা নির্বাহের জন্য গভির নলকুপের ঘরের মধ্যে একটি চৌকির উপর কাজ করে আসার এক পর্যায়ে শুক্রবার সকাল অনুমান ৮টার দিকে ঘর বন্ধ করে মানিকের বাড়িতে গরুর খাবার দিতে আসলে হঠাৎ বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কেট থেকে ঘরটিতে আগুন ধরলে স্বামী স্ত্রীর অর্ডারকৃত ২৫ হাজার টাকার মূল্যের কাপড়-চোপড় ও নগদ ডিপের আদায়কৃত ৭ হাজার টাকা পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

কিন্তু ঘরে রক্ষতি আল-কুরআন শরীফকে আগুন স্পর্শ করতে পারেনি। ঘটনাটি দেখতে আসা অনেকে বলেন, রাতে যদি ঘটনাটি ঘটতো তাহলে নজরুল বেঁচে থাকতো না, কথায় আছে রাখে আল্লাহ মারে কে! এ ব্যাপারে কথা হয় নজরুল ইসলামের সাথে। তিনি বলেন, আমার ঘরের সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। কিন্তু আগুন স্পর্শ করতে পারেনি আল-কুরআন শরীফ।

তিনি আরো বলেন, ঈদের জন্য কিছু মানুষ কাপড় বানানোর জন্য ২৫ হাজার টাকার কাপড় দিয়ে গেয়েছিল। তাদের দেওয়া কাপড়গুলো সমস্ত পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তাই এই মহুর্তে সরকারি ও বৃত্তবান লোকদের আর্থিক সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।