শিবগঞ্জে যাতায়াতের রাস্তাকে কেন্দ্র করে বসতবাড়ি ভাংচুর

322
রবিউল ইসলাম, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ-  বগুড়ার শিবগঞ্জের পল্লীতে তুচ্ছ ঘটনায় যাতায়াতের একমাত্র রাস্তাকে কেন্দ্র করে বসতবাড়ির আংশিক অংশ ভাংচুর করা হয়েছে। এ বিষয়ে সংক্ষুব্ধ হয়ে শনিবার দুপুরে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
শনিবার (২৪ এপ্রিল) সকাল ১১ঘটিকার শিবগঞ্জ উপজেলার বিহার ইউনিয়নের ওসলগাড়ী গ্রামে মকবুল হোসেন অভিযোগ ওঠা ঘরের উপর টিনের ছাউনি  দেওয়ার সময় প্রতিপক্ষ তাকে বাঁধা দিতে আসলে উভয় পক্ষের কথা-কাটাকাটির জেরে এমন ঘটনা ঘটে। এতে মকবুলের স্ত্রী মাফিয়া ও পুত্রবধূ শাহিনুর আক্তার লাঞ্ছিত হয়। এ ঘটনায় মকবুল হোসেন বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় প্রতিপক্ষ আমজাদ, আজমল, খলিল ও আফজাল হোসেনের নামে অভিযোগ দায়ের করে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, অভিযোগ ওঠা ঘরের পাশ দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের ইটের ছলিং করা রাস্তা রয়েছে, তার পার্শ্বেই মকবুলের যে ঘর রয়েছে তাতে টিনের ছাউনি দেওয়ার সময় প্রতিপক্ষ আজমলগংরা বলে ঐ ঘরের পশ্চিমকোণায় একটু জায়গা ছেড়ে নতুন করে ঘর ও ছাউনি তুলতে। এতে মকবুল আপত্তি জানালে বাঁধে ঝগড়া। এক পর্যায়ে ঐ ঘরের পশ্চিমকোণ প্রতিপক্ষরা ভেঙ্গে ফেলে। বাদী মকবুল বলেন, ‘আমার ঘড়টিতো নতুন নয়, আগে থেকেই তোলা আছে, ঘরের পাশ দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের রাস্তাও রয়েছে। বিবাদী আজমলগংরা ক্ষমতার জোরে আমার বাড়ির আংশিক অংশ ভাংচুর করেছে, ঘটনার প্রতিকার পেতে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।
প্রতিপক্ষ আজমল বলেন, ‘মকবুলের ঐ ঘড়ের পশ্চিমকোণ আমাদের জায়গার উপর পরেছে, পাশ দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের ইটের যে রাস্তা রয়েছে তা দিয়ে রিক্সা ভ্যান কিছুই যায়না, বাদী মকবুলকে ঐ পশ্চিমকোনে একটু জায়গা ছেড়ে দেওয়াল তোলার কথা বলা হলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে যায়, এতে বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী ঘরের ঐ অংশ ভেঙ্গে দিয়েছে। বাদী মকবুল হোসেন হয়রানি করার জন্য আমাদের নামে এর আগে ততোধিক মামলা করেছে, জমি পরিমাপকারী (আমিন) নিয়ে এসে ঐ জায়গা পরিমাপ করে ঘর নির্মান করলে আমাদের কোন আপত্তি থাকবেনা, সঠিক সমাধানের জন্য আমরাও থানায় অভিযোগ দায়ের করবো’।
এ ঘটনায় পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ঐ স্থান পরিদর্শক করেছে ঘটনাটি সমাধানের আশ্বাস দিয়েছে। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানায় ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, উভয় পক্ষের সাথে কথা বলে অভিযোগ পর্যালোচনা করে ইউনিয়ন বিট পুলিশিং এর মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান করে দেওয়া হবে।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।