মহাস্থানে বৈদ্যুতিক খুঁটি স্থাপন করতে গিয়ে খুঁটির নিচে চাপা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

361
গোলাম রব্বানী শিপন, মহাস্থান (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ-  মৃত্যুর আগে বাড়িতে স্ত্রী সন্তানদের সাথে ফোনে কথা বললেন, আম্মু তোমার জন্য ঈদের নতুন জামা নিয়ে আসবো!! এর কিছুক্ষণ পড়েই বিদ্যুতের খুঁটির নিচে চাপা পড়ে করুন মৃত্যু হয় তাঁর।
ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের মহাস্থানগড় জিয়ৎ কুপের পাশে। ওই এলাকায় বিদ্যুতের কাজ করার সময় খুঁটি ঠেলাগাড়ি করে বহনের সময় হঠাৎ উল্টে নিচে চাপা পড়ে এক শ্রমিকের করুন মৃত্যু হয়। নিহত শ্রমিক মোনতার গ্রামের বাড়ি পঞ্চগড় সদরের চাকলাহাট ইউনিয়নের অথনীবাড়ি গ্রামের ফাল্গুনীর পুত্র মোনতাজুর রহমান (২৬)।
স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, গড়মহাস্থান পূর্বপাড়ায় নর্দান ইলেকট্রিসিটি  সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (নেসকো) এর নতুন সংযোগ স্থাপনের কাজ করছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায়  রবিবার (২৫এপ্রিল) দুপুর আড়াইটার দিকে গড়মহাস্থান পূর্বপাড়া গ্রামে বৈদ্যুতিক খুটি স্থাপনের জন্য ঠেলাগাড়ি করে খুঁটি পারাপারের সময় অসাবধানতা বসত ওই বহনটি উল্টে খুটির নিচে মোনতা পড়ে আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাঁকে দ্রুত উদ্ধার করে বগুড়ার ঠেঙ্গামারা রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
এলাকাবাসী আরও জানান, মৃত্যুর কিছুক্ষণ আগে নিহত মোনতাজুর বাড়িতে স্ত্রী সন্তানদের সাথে দীর্ঘক্ষণ ফোনে কথা বলেন। মোনতা ফোনে কান্নাজঠিত কণ্ঠে বলে ছিলেন, আম্মু ঈদের আগেই তোমার নতুন জামা নিয়ে আসবো। ঈদের আগেই হয় তো স্ত্রী সন্তানকে মোনতা নতুন জামা দিতে না পারলেও তিনি নতুন সাদা কাপড় ঠিক পরিধান করলেন।
এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা থানায় জানিয়েছেন। খবর পেয়ে সেখানে ফোর্স পাঠানো হয়েছে। এখনও লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
গড়মহাস্থান ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন বলেন, আমার ডিপসাপ্লাই পানির সামনে ঘটনা। সকালে তাদের কাজ করতে দেখেছি। ঝুঁকি নিয়ে অনেকটা গাফিলতি করে কাজ করা হচ্ছিল। কাজের সিকিউরিটি যদি না থাকে তাহলে এরকম অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটতেই থাকবে।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।