ক্ষেতলালে প্রতিবন্ধী কিশোরকে বলাৎকারের অভিযোগ, থানায় মামলা করতে সাহস পাচ্ছে না পরিবার

329
এস এম মিলন, জেলা প্রতিনিধি জয়পুরহাটঃ-   জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে প্রতিবন্ধী কিশোরকে বলাৎকারের অভিযোগ , থানায় মামলা করতে সাহস পাচ্ছে না পরিবার, উপজেলার বিনাই গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে।
এলাকাবাসী ও  ভিকটিমের পরিবার সূত্রে জানা গেছে , চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহের দিকে বিনাই গ্রামের বাবলু মন্ডল এর পুত্র অটোরিকশা চালক লম্পট শাহিন (২৫) ফুসলিয়ে কৌশলে একই গ্রামের আয়েজ উদ্দিনের প্রতিবন্ধী কিশোর খাদেম আলীকে (১৬) তার বাড়িতে নিয়ে যায়। বিবাহিত শাহিনের স্ত্রী বাড়িতে না থাকার সুযোগে প্রতিবন্ধী ওই কিশোরকে জোরপূর্বক বলাৎকার করে লম্পট শাহিন। শাহীন ওই কিশোরকে এ কথা কাউকে না বলার জন্য ভয় দেখায়। ফলে প্রতিবন্ধী কিশোর ঘটনাটি বাড়িতে কাউকে বলেনি, ঘটনার কয়েকদিন পর ওই কিশোরের নিম্নাঙ্গ ফুলে ব্যথায় কাতরাতে থাকলে তার মায়ের জিজ্ঞাসাবাদে প্রতিবন্ধী কিশোর সব ঘটনা খুলে বলে। ঘটনা জানার পর ভিকটিমের পরিবার অভিযুক্ত শাহিনসহ তার পরিবারকে জানালে তারা অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেন এবং ভিকটিমের পরিবারকে শাসিয়ে দেন।
ভিকটিমের মা বলেন, উপায় না দেখে তারা বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যান আবু রাশেদ আলমগীরকে কে অবহিত করেন, চেয়ারম্যান স্থানীয়ভাবে বিষয়টি আপোষ মীমাংসা করার পরামর্শ দেন। ভিকটিমের মা আরো জানান, গ্রাম্য মাতব্বর ও প্রভাবশালী মহলের চাপে তিনি আইনি পদক্ষেপ নিতে সাহস পাচ্ছেন না, এবং এর কোন বিচার সালিশ করে দিচ্ছেন না, ভিকটিমের মা কান্না জড়িত কন্ঠে অসহায়ত্ব প্রকাশ করে বলেন, তারা গবীব,অসহায়।
সাংবাদিক ও মানবাধিকার সংস্থা তাদের পাশে দাঁড়ালে তিনি অবশ্যই আইনী পদক্ষেপ নিবেন এবং থানায় মামলা করবেন। অভিযুক্ত অটোরিকশা চালক শাহিনকে বার বার চেষ্টা করেও তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি, তবে অভিযুক্ত শাহিনের বাবা বাবলু মন্ডল ঘটনাটি অস্বীকার করে বলেন, এ বিষয়ে তারা কিছুই জানেন না, তার কাছে অভিযুক্ত শাহীন এর ফোন নাম্বার চাইলে তিনি তা দিতে অস্বীকার করেন এবং বলেন শাহিন ফোন ব্যবহার করেন না।
স্থানীয় ইউপি সদস্য সারফুল ইসলাম সাবু বলেন, প্রতিবন্ধী কিশোর বলাৎকারের ঘটনাটি শুনেছি পরবর্তী আপডেট জানিনা। বড়াইল ইউপি চেয়ারম্যান আবু রাশেদ আলমগীর বলেন ,আমি স্থানীয়ভাবে আপোষ মীমাংসার কথা কখনো বলিনি বরং হাসপাতালে ভর্তি করে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য পরামর্শ প্রদান করেছি।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।