বিষ পানে যুবকের আত্মহত্যা, ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন

345
মাসুম বিল্লাহ, বরগুনা জেলা প্রতিনিধি :–  বরগুনার তালতলীতে বিষ পানে আত্মহত্যাকারী শামীমের (২৪) লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফন করা হয়েছে। মৃত্যু শামীম উপজেলার ৫ নং বড়বগী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের কাজীর খাল এলাকার মোঃ জালাল ফরাজীর ছেলে।
সরেজমিন গিয়ে জানাযায়, ১৮মে সকালে শামীম তার শশুড় বাড়ি থেকে বাড়িতে ফিরেন। এবং বিকেল আনুমানিক ২.০০ মিনিটের সময়ে বিষপান করেন। পরক্ষণে তাকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন এবং সেখানকার কর্মরত চিকিৎসক তাকে রেফার করলে, পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময়ে বিকেল ৫ টার দিকে পথিমধ্যেই তার মৃত্যু হয়। এবং ১৯মে সকাল ৯.৩০ এর দিকে তাকে দাফন করা হয়।
তবে কি কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন এবিষয়ে মুখ খুলতে রাজি নন শামীমের শশুড় বাড়ির লোকজনসহ শামীমের পরিবার। এ বিষয়ে উক্ত ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশের সাথে যোগাযোগ করলে, আত্মহত্যার কথা নিশ্চিত করে, ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন হয়েছে বলে জানায়। এছাড়াও রাতে তালতলী থানা পুলিশের উপপরিদর্শক এসআই রফিকের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বিষপানের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
এ বিষয়ে তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান মিয়ার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি, এসআই দেলোয়ারের সাথে কথা বলতে বলেন। এবং এসআই দেলোয়ার জানায়, তার পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে উর্ধতন কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করে দাফনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কিন্তু এ বিষয়ে বরগুনা জেলা পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর মল্লিকের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, রহস্যটা যেনে আপনাকে জানাচ্ছি।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।