প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন সংস্থার ঊধ্বর্তন কর্তার স্বাক্ষর জাল করে ডিও লেটার পাঠানোর প্রতারক চক্রের মূল হোতা আটক

375
ফারমান আলী, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ-  নওগাঁয় মান্দায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকারি বিভিন্ন সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের স্বাক্ষর জাল করে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে ডিও লেটার পাঠানো প্রতারক চক্রের মূল হোতা অসীম হোসেনকে (২০) আটক করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় একটি গোয়েন্দা সংস্থা এবং জেলা গোয়েন্দা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে মান্দা উপজেলার কশব ইউনিয়নের পলাশবাড়ী থেকে তাদের আটক করা হয়।
একই রাতে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরো একই এলাকার আরো তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। প্রতারক চক্রের মূল হোতা অসীম হোসেন উপজেলার বিজয়পুর গ্রামের আফজাল হোসেন ছেলে। মঙ্গলবার দুপূরে জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলক কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম এ সব তথ্য জানান।
পুলিশ সুপার এ সময় জানান, প্রতারক অসীম হোসেন দীর্ঘদিন থেকে প্রধানমন্ত্রী, একটি গোয়েন্দা সংস্থার মহাপরিচালকসহ সরকারি বিভিন্ন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার স্বাক্ষর জাল করে বিভিন্ন সরকারি অফিসে ডিও লেটার প্রদানের তথ্য জানতে পারে ওই গোয়েন্দা সংস্থা। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত মূল হোতা অসীমের উপর একটি গোয়েন্দা সংস্থা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখে তথ্যের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সহযোগিতায় তাকে আটক করা হয়েছে।
এ সময় নানান রকমের নথিপত্র, ২টি মোবাইল সেট এবং ১টি হার্ডডিস্ক, বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণের উদ্দেশ্যে প্রস্তুতকৃত ডিও লেটারের কপি জব্দ করা হয়েছে। স্বাক্ষর জাল করে বিভিন্ন সরকারি অফিসে ডিও লেটার প্রদানের ঘটনাটি প্রাথমিক ভাবে সত্যতা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরো একই এলাকার আরো তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
পুলিশ সুপার আরো জানান, অসীম হোসেনের বিরুদ্ধে পেনাল কোর্ডে মান্দা থানায় দায়ের করা আরো একটি মামলা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে পেনাল কোর্ড এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মান্দা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সঠিক তদন্ত করে মূল হোতা অসীমের সাথে এই ঘটনায় আরো যারা জড়িত আছে তাদের গ্রেপ্তার করতে তৎপর রয়েছি।  এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কে,এম,এ মামুন খান চিশতী, সরকারি পুলিশ সুপার (ডিএসবি) সুরাইয়া খাতুন, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ও‘সি কেএম শামসুদ্দিন, নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জুয়েল সহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ে কর্মকতা ও সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।