কাহালুতে হত্যা করে মাটির নীচে পুতে রাখা কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার

470

কুতুব শাহাব উদ্দিন বাবু, কাহালু (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ দুর্বৃত্তরা আরমান হোসেন আন্না (১৯) নামের এক কলেজ ছাত্রকে হত্যা করে কাহালু উপজেলার ডোমরগ্রাম খান পুকুর পাড়ের পাশে কবরস্থানের ওয়ালের কাছে মাটির নীচে পুতে রাখে। সোমবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ সেখান থেকে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। আরমান হোসেন আন্না গাইবান্ধা সরকারি কৃষি ইনস্টিটিউট এর সপ্তম সিমিস্টারের ছাত্র এবং ডোমগ্রামের আজিজার রহমান খানের একমাত্র পুত্র। এদিকে লাশটি উদ্ধারের পর জ্ঞিাসাবাদের জন্য খান পুকুরের ইজারাদার ওবায়দুল (৩২) ও পুকুর পাহারাদার সুজন (২২) কে আটক করে পুলিশ।

গ্রামবাসীর তথ্যমতে রবিবার সন্ধ্যার পরে আরমান ও তার আরো দুজন বন্ধু মিলে ডোমরগ্রাম বড় মসজিদের পাশে একটি দোকানে চা খেয়েছে। এরপর আরমান বন্ধুদের বলে যান, তিনি খানপুকুরে সুজনের কাছে যাবে। সেখানে যাওয়ার পর বাড়িতে ফিরে না আসায়, রাতভর তাকে খোজাঝুজি করে পরিবারের লোকজন। ভোরে ঘটনাস্থলের মাটি সড়িয়ে তার লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয় তারা। কাহালু থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, এঘটনায় আরমানের পিতা আজিজার রহমান বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। মামলাটি নেওয়ার পর এই হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনে আমরা আন্তরিকভাবে কাজ করছি।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।