শিবগঞ্জে বখাটে কর্তৃক মেয়ে শিক্ষার্থীকে উত্ত্যক্তঃ থানায় অভিযোগ

346

রবিউল ইসলাম , শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জে ৩ বখাটে কর্তৃক মোটরসাইকেল দিয়ে জেএসসি পরীক্ষার্থীর পথরোধ করে উত্ত্যক্ত’র ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।বিষয়টি এলাকার কথিত প্রভাবশালী মহল ধামা চাপা দেওয়ার জন্য গত ৩দিন যাবৎ দেন দরবার চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। অবশেষে গত শুক্রবার মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে শিবগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলা শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ধাঁওয়াগীর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির এক মেয়ে শিক্ষার্থীকে গত বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার সময় গুজিয়া বন্দরের একটি কোচিং সেন্টার থেকে প্রাইভেট পড়ে বাড়ী ফেরার সময় মাঝপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকায় পৌঁছিলে ধাওয়াগীর পাগলাপাড়া গ্রামের উজির আলীর ছেলে পারভেজ (২০), ধাওয়াগীর মিয়াপাড়া গ্রামের হাম্মাদ আলী বাদলের ছেলে বিদ্যুৎ (১৯) ও ধাওয়াগীর পাগলাপাড়া গ্রামের আ: খালেক এর ছেলে শাকিল (১৯) মোটরসাইকেল দিয়ে বেরিগেট সৃষ্টি করে উত্ত্যক্ত করে।

একপর্যায়ে বখাটেরা মেয়ের শরীর স্পর্শ করে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়। এসময় স্থানীয় এলাকাবাসী বিষয়টি বুঝে উঠার আগেই বখাটেরা দ্রুত পালিয়ে যায়।মেয়ে শিক্ষার্থীর মা লজিবা বেগম বলেন, আমার মেয়ে প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার সময় ওই তিন বখাটে যুবক মোটর সাইকেল নিয়ে পিছু নেয়।

একপর্যায়ে আমার মেয়ের শরীর স্পর্শ করে ও ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়। আমি বখাটে যুবকদের বিচার চাই।ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আহম্মেদ সাবু বলেন, শিক্ষার্থীর পরিবারকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলেছি।এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

করোনার মধ্যে কোচিং এ প্রাইভেট পড়ার বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবে দেখছেনা স্থানীয় একাধিক সচেতন ব্যক্তি। তারা বলেন, করোনার জন্য সরকার স্কুল বন্ধ রেখেছে সেখানে সরকারের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে প্রাইভেট ও কোচিং বানিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে এক শ্রেণীর মুনাফাখোর শিক্ষক।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থী বলেন, প্রেম নিবেদন করে ব্যর্থ হওয়ার কারণে এমন ঘটনা ঘটতে পারে।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।