ভারী বৃষ্টি কারণে তিস্তা বিপদ সীমা ১২ সে:মি. উপর প্রবাহিত

306

নীলফামারী প্রতিনিধি বিপুল রায় : উজানে ভারী বৃষ্টিপাত আর পাহাড়ি ঢলে আকস্মিক বেড়েছে তিস্তার পানি।  বৃহস্পতিবার  সকাল থেকে তিস্তা নদীর পানি নীলফামারীর ডালিয়া পয়েন্টে বিপৎসীমার (৫২ দশমিক ৬০ মিটার) ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, উজানে ভারী বৃষ্টিপাত আর পাহাড়ি ঢলে বুধবার সকাল থেকে তিস্তা নদীর ডালিয়ায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে পানি বাড়তে থাকে। বেলা ৩টার দিকে সেখানে বিপৎসীমার ১৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। সন্ধ্যা ৬টায় বিপৎসীমা অতিক্রম করে ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। ও

পয়েন্টে নদীর পানির বিপৎসীমা ৫২ দশমিক ৬০ মিটার।তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় জেলার ডিমলা উপজেলার নদী বেষ্টিত পূর্বছাতনাই, টেপাখড়িবাড়ি, খালিশাচাপানী, ঝুনাগাছচাপনী, পশ্চিমছাতনাই ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামের পাঁচ হাজার পরিবার বন্যার ঝুঁকিতে পড়েছে।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রবিউল ইসলাম বলেন,‘তিস্তার উজান ভারত অংশে ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ায় উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বুধবার দুপুর থেকে বাড়তে থাকে তিস্তা নদীর পানি। যা সন্ধ্যা ৬টায় আরও বৃদ্ধি পেয়ে বর্তমানে তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে বিপৎসীমার ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

রাতে আরও কিছুটা পানি বাড়তে পারে। পানি নিয়ন্ত্রণে ব্যারাজের সব কটি জলকপাট (৪৪) খুলে রাখা হয়েছে’।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।