ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখায় ৬ ব্যবসায়ীকে ১৯ হাজার টাকা জরিমানা

260

 

নাসির উদ্দিন, কালাই উপজেলা ( জয়পুরহাট) প্রতিনিধি: কালাই উপজেলা উদয়পুর ইউনিয়ন মোসলেগন্জ বাজারে অনুমোদোনহীন, গ্যাসের সেলেন্ডার, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখা এবং বিক্রির অভিযোগে একটি ফার্মেসী একটি মদী দোকানকে সর্ব শেষ ইত্যাদি কপি হাউস, বিভিন্ন ভাবে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর ) দুপুর নাগাদ উপজেলার মোসলেমগন্জ বাজারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, মোবারক হোসেন পারভেজ নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ভেজাল ওষুধ বিক্রি সহ সেগুলো মজুত রাখা এবং গ্যাস সেলেন্ডার অপব্যাবহারে আইনত দন্ডনীয় অপরাধ করে তারা। তবুও এসব জেনেও অনেক অসাধু ব্যাবসায়ী এবং ফার্মেসীগুলোতে এ কার্যক্রম চলমান রাখছে ব্যাবসায়ীরা।

মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুদ সেবন করার কারনে দেশে অনেক প্বার্শপ্রতিক্রিয়া সৃস্টি রোগ না সেরে অন্য রোগের সৃষ্টি হচ্ছে,কিন্তু কিছু অসাধু ব্যবসায়ীগন জনগনের স্বাস্থ্যসেবার চেয়ে নিজেদের ব্যাবসায়িক স্বার্থ কে বড় করে দেখছেন।

এ অভিযানে উপস্থিত ছিলেন, আইন শৃংঙ্খলা বাহিনী সহ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, মোবারক হোসেন পারভেজ বলেন, অনুমোদিত, ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখা ও বিক্রির অভিযোগে ঔষধ ফার্মেসীর মালিক

ইত্যাদি কপি হাউস ১,০০০,টাকা ।

মেসার্স নাসিমা ট্রেডার্স ১০,০০০হাজার টাকা।

মেসার্স সোমায়া ট্রেডার্স কে ১,০০০ হাজার টাকা।

মেসার্স পলাশ ট্রেডার্স ১০০০ টাকা।

মিঠু হার্ডওয়াক ৫,০০০, টাকা।

আতাউর স্টোর ১,০০০টাকা, আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে। ঔষধ আইন ১৯৪০ এর ১৮/২৭ ধারায় তাদের জরিমানা করা হয়।

এ ছাড়া অনুমোদিত, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ নষ্ট করা হয়েছে। এ ধরনের অভিযান আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।