সহজে কাঙ্খিত সেবা মানুষকে প্রদান করছেন সহকারি কমিশনার মাহবুবা হক

198
সহজে কাঙ্খিত সেবা মানুষকে প্রদান করছেন সহকারি কমিশনার মাহবুবা হক
সহজে কাঙ্খিত সেবা মানুষকে প্রদান করছেন সহকারি কমিশনার মাহবুবা হক

সান্তাহার (বগুড়া) প্রতিনিধি: বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রতিটি সরকারি-বেসরকারি দপ্তর সমূহে দ্রুত কাজ সম্পন্ন ও দুর্নীতিমুক্ত রাখতে নির্দেশনা জারি করেছেন। সেই নির্দেশনাকে মেনে কোন প্রকার হয়রানি ছাড়াই বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা ভূমি অফিসে সহজে পাচ্ছেন কাঙ্খিত সেবা। দ্রুত এবং সহজ মাধ্যমে মানুষকে সেবা ও পরামর্শ প্রদান করে অল্প দিনে উপজেলা ভূমি অফিস আদমদীঘি বাসীর কাছে জনবান্ধব অফিস হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছে। সরকারি নির্ধারিত ফি ছাড়া অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় ছাড়া হয়রানিও হতে হয়না সেবা গ্রহিতাদের। সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হক যোগদান করার পর থেকে ই-নামজারি, ভূমি উন্নয়ন কর, অর্পিত, পত্যিক্ত সম্পত্তি, জলমহাল ও পরচাসহ যাবতীয় সেবা পেতে এখন আর সময় নষ্ট করতে হয় না। এ যেন উপজেলাবাসীর বাড়তি কিছু পাওয়া।
জানা যায়, বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা ভুমি অফিসে সহকারি কমিশনার (ভূমি) হিসাবে মাহবুবা হক গত ২০২০ সালের ৫ মে আদমদীঘি উপজেলায় যোগদান করেন। করোনাকালে মাহবুবা হক সরকারি নির্দেশনামতে ভূমি অফিসের আওতায় ভূমি মালিকদের জমি সংক্রান্ত সেবা মিসকেছ, নামজারী, ভূমি উন্নয়ন কর, অর্পিত ও পত্যিক্ত সম্পত্তি, জলমহাল সুষ্টভাবে দেখভাল ও পরচাসহ যাবতীয় ভূমিসেবা মালিকগন দ্রুত পাচ্ছেন। এ জন্য এখন আর সময় নষ্ট করতে হয় না। এমনকি সরকারি ফি ছাড়া অতিরিক্ত অর্থ ব্যায় কিংবা হয়রানিও হতে হচ্ছেনা সাধারণ মানুষকে। ই-নামজারি করতে আসা উপজেলার সান্দিড়া গ্রামের আব্দুল হাই সিদ্দিক জানান, তিনি সরাসরি উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) কাছে গেছেন এবং তার ২২ শতক জমির খারিজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পেয়েছেন। সরকারি ফি ছাড়া বাড়তি কোন অর্থ ব্যায় কিংবা হয়রানিও হতে হয়নি। এছাড়াও তিনি করোনাকালে নানা ধরনের মানবিক কাজ করে চলেছেন তার মধ্যে সুরক্ষা সামগ্রী মাস্ক, সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ফ্রি বিতরনসহ সাধারন জনসাধারনকে নানা ভাবে সচেতন করে চলেছেন। সম্প্রতি তিনি সরকারি বেঁধে দেওয়া দরের চেয়ে অতিরিক্ত মুল্যে চাল বিক্রি ও অতিরিক্ত চাল মজুদের অপরাধে ৬ মিল মালিকের ১লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন সহকারী কমিশনার (ভুমি) মাহবুবা হকের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত।
এ ব্যাপারে সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হক জানান, আমার অফিস হচ্ছে জনবান্ধব অফিস। সেবা গ্রহিতাদের সাথে আমি সরাসরি সাক্ষাৎ করছি। দ্রুত এবং সহজ মাধ্যমে মানুষকে সেবা দেওয়ার জন্য আমি সর্বদা প্রস্তুত থাকি।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।