বগুড়া র‌্যাবের অভিযানে অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে অপহরণকারীদের গ্রেফতারসহ ভিকটিম উদ্ধার

169
বগুড়া র‌্যাবের অভিযানে অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে অপহরণকারীদের গ্রেফতারসহ ভিকটিম উদ্ধার
বগুড়া র‌্যাবের অভিযানে অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে অপহরণকারীদের গ্রেফতারসহ ভিকটিম উদ্ধার

ক্রাইম রিপোর্টার: র‌্যাব তার প্রতিষ্ঠা লগ্ন হতেই খুন, অপহরণ, জঙ্গীদমন, ছিনতাই, চাঁদাবাজ, চুরি, অবৈধ মাদক ব্যবসা ও চোরাচালানসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধ করাসহ দূস্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে অপরাধ নির্মূলে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে এবং র‌্যাব-১২ এর সিপিএসসি, বগুড়া ক্যাম্পের আওতাধীন এলাকাগুলিতে ব্যাপকভাবে সফলতা অর্জন করেছে। গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধিসহ সার্বক্ষনিক অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব ইতিমধ্যে জনগনের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

গত ১৯ অক্টোবর ২০২০ তারিখ বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি থানাধীন জোড়গাছা (পশ্চিমপাড়া) গ্রাম হইতে অনুমান ০৩.০০ ঘটিকায় ০২ জন অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে নিজ বাড়ী হইতে পাশের বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বাহির হয়ে যায়। কিন্তু পরবর্তীতে বাড়ীতে ফিরে না আসায় ভিকটিমের পিতা বগুড়া সারিয়াকান্দি থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করেন (সারিয়াকান্দি থানার জিডি নং-৭৬৪ তারিখ ২০ অক্টোবর ২০২০)।

পরবর্তীতে ভিকটিমের পিতা র‌্যাব-১২, সিপিএসসি, বগুড়া ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডারকে বিষয়টি জানালে, তিনার নির্দেশ মোতাবেক অপহরণকারীকে গ্রেফতার ও ভিকটিম উদ্ধারে ব্যাপক গোয়েন্দা কার্যক্রম শুরু করে এবং বগুড়া জেলার সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। সর্বশেষ, অদ্য ২২ অক্টোবর ২০২০ তারিখ সকাল ১২.৩০ ঘটিকায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২, সিপিএসসি, বগুড়া এর একটি আভিযানিক দল বগুড়া জেলার সদর থানাধীন পৌরপার্ক এলাকা হইতে অপহরণকারী ১। মোঃ শাকিল শেখ (২৪), পিতা-মৃত শামসুল শেখ ভোলা, সাং-চকসুত্রাপুর (কুলিপাড়া), থানা ও জেলা-বগুড়া, ২। মোঃ আবু হানিফ (২৬), পিতা-মোঃ হবিবর রহমান, সাং-নিমাইদিঘী, থানা-নন্দীগ্রাম, জেলা- বগুড়া এবং ৩। মোছাঃ জান্নাতুল ফেরদৌস জান্নাত@হেলেনা (১৭), পিতা-মোঃ শামসুল প্রামানিক, সাং-জোড়গাছা, থানা-সারিয়াকান্দি, জেলা-বগুড়াদের‘কে গ্রেফতার এবং ভিকটিমকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয় এবং অপহরণকারী চক্র ভিকটিমকে যৌন ব্যবসায় জড়ানোর চেষ্টা ও যৌন কাজে লিপ্ত হতে বাধ্য করেন। আসামীদের বিরুদ্ধে অপরহণ, ধর্ষন ও মানবপাচার মামলা দায়ের কার্যক্রম অব্যহত আছে।

র‌্যাবের এ ধরনের চাঞ্চল্যকর অপরাধ বিরোধী আভিযানিক কার্যক্রম চলমান থাকবে এবং ভবিষ্যতে আরো জোরদার করা হবে। আইন শৃংখলা বাহিনীর এ ধরনের তৎপরতা বাংলাদেশকে একটি অপরাধমুক্ত দেশ হিসাবে গড়ে তুলতে পারবে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।