মহানবী সাঃকে অবমাননার প্রতিবাদে মহাস্থানে বিক্ষোভ গণমিছিল ও ম্যাক্রঁর কুশপুতুল দাহ

190

মহাস্থান (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ সাম্প্রতিক মহানবী সাঃকে নিয়ে ফ্রান্স সরকার ম্যাক্রঁর অবমাননা ও কটুক্তি প্রতিবাদে বিশ্বের মুসলিম দেশগুলো উত্তাল।

এরই অংশ হিসেবে নাস্তিক ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় বিশ্বনবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর অবমাননা, কটুক্তি ও ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে রাসূল (সাঃ) প্রেমিক ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের নেতৃত্বে সর্বস্তরের মুসলমান জনতা ঐক্যবদ্ধভাবে সমাবেশ ও বিক্ষোভ গণমিছিল করা হয়েছে।

শুক্রবার (৩০অক্টোবর) জুম্মার নামাজ শেষে বগুড়ার ঐতিহাসিক মহাস্থান হযরত শাহ সুলতান বলখী (রহঃ) এর মাজার মসজিদ চত্বর থেকে হাজার হাজার মুসাল্লিদের অংশগ্রহণে শুরু হয় সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল। বিক্ষোভ মিছিল মহাস্থান মাজার গেট থেকে বের হয়ে শিবগঞ্জ আঞ্চলিক রাস্তা দিয়ে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে আবারও মাজার গেট চত্ত্বরে সমাবেশ করেন। বিক্ষোভ মিছিলে বক্তারা বলেন, ফ্রান্স সরকার কর্তৃক পৃষ্ঠ মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে যে ঘৃণ্য কাজ করা হয়েছে তা বিশ্ব মুসলিমদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছে। বেঈমানরা বেঁচে থাকার জন্য যুদ্ধ করে আর আমরা মুসলিম সম্প্রদায় ইসলাম ও নবীর ইজ্জতের হেফাজত রক্ষার জন্য জিহাদ করে জীবন দিতে সর্বদা প্রস্তুত থাকি। বক্তারা দেশের সরকার প্রধানের উদ্দেশ্য করে আরও বলেন, অনতিবিলম্বে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ফ্রান্সের এ ঘৃণ্য কাজের নিন্দা প্রস্তাব পাশ করে রাষ্ট্রদূতকে তলব করে এর প্রতিবাদ জানান। রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সের সকল পন্য বর্জন করে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করুন। এছাড়া বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে কিছু দাবী পেশ করা হয়।

এসময় ফ্রান্সের সরকার ম্যাক্রঁর কুশপুতুলে জুতা মেরে আগুনে পুড়িয়ে (দাহ) করা হয়। বক্ত্যরা আরও বলেন, বাংলাদেশস্থ ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ফ্রান্স সরকার কর্তৃক আমাদের প্রিয় নবী সা: এর বিরুদ্ধে অবমাননাকর কার্টুন ছবি প্রচার বন্ধ করতে নির্দেশ প্রদান করতে হবে এবং নিজেদের কৃতকর্মের জন্য মুসলিম বিশ্বের কাছে নিঃশ্বর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। ফ্রান্সের সাথে সকল প্রকার কুটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে। সেখানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় দূতকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে। তাদের সাথে সকল প্রকার ব্যবসায়ীক লেনদেন বন্ধ করতে হবে। মেহেদি হাসান সয়েব এর উদ্যোগে এক দল যুব-সমাজকে নিয়ে, বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, রায়নগর ইউপি সদস্য তোফাজ্জল হোসেন তোফা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাপা নেতা গোলাম রব্বানী পুটু, আলহাজ্ব আব্দুল জলিল, আব্দুল আলিম আবু বক্কর সিদ্দিক, তাহেরুল ইসলাম, মাষ্টার আরাফাত রহমান, মানিক রহমান, শরিফুল ইসলাম, নূরনবী ইসলাম প্রমূখ। বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা যেনো না ঘটে এজন্য মিছিলে বিশেষ সতর্কতায় ছিলেন, শিবগঞ্জ থানার সার্কেল অফিসার আরিফুল ইসলাম সিদ্দিকী, (ওসি) এসএম বদিউজ্জান সহ সঙ্গীয় ফোর্স।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।