দুপচাঁচিয়ায় যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

304

দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধি : গত শুক্রবার রাতে দুপচাঁচিয়া উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের স্বর্জনকুড়ি গ্রামের অটোভান চালক এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এ সংক্রান্তে গতকাল শনিবার থানায় অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের স্বর্জনকুড়ি গ্রামের সোলাইমান সরদার ওরফে ফেরদৌসের ছেলে অটোভ্যান চালক রায়হান বাদশা (২৭) গত বৃহস্পতিবার বিকালে প্রতিবেশী জনৈক যুবকের সাথে বের হয়। এর পর একই গ্রামের এক ব্যাক্তির ধান বিক্রয়ের ২০ হাজার টাকা সাহারপুকুরের এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে উত্তোলন সহ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে ওই যুবকের সাথে প্রথমে সান্তাহার যায়। পরে রাতে বগুড়ার একটি অভিজাত হোটেলে রাত্রীযাপন করে। পরের দিন শুক্রবার সকালে বগুড়ার স্থানীয় একটি হোটেলে সারাদিন অবস্থান নেয়। সন্ধ্যার পর বাড়ির উদ্দেশ্য রওনা দেয়। সন্ধ্যা ৭ টায় স্বর্জনকুড়ি গ্রামের মাঠের মধ্যে ডিপ মেশিনঘরের সামনে থেকে রায়হান বাদশা তার বাড়িতে মোবাইল ফোন করে জানায় সে গুরুত্বর অসুস্থ ডিপ মেশিনের সামনে পড়ে আছে, তাকে উদ্ধার করতে বলে। বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে দ্রুত দুপচাঁচিয়া হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় বাড়িতে ফিরে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে ১০ টায় সে মারা যায়। গতকাল শনিবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ তার বাড়িতে যায় এবং ঘটনাস্থল ডিপ মেশিন ঘরের সামনে পরিদর্শন করে। এ সময় ডিপ মেশিন ঘরের সামনে থেকে গ্যাসের ট্যাবলেট উদ্ধার করে। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা সে গ্যাসের ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য উদঘাটনে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এদিকে এলাকাবাসী সহ রায়হান বাদশার পরিবারের লোকজন জানান, গ্রামের ওই যুবক রায়হান বাদশাকে প্রলোভন দিয়ে বগুড়া নিয়ে যায়। তার কাছে রক্ষিত ৫০ হাজার টাকায় ফুর্ত্তি করে এবং রাতে ফাইভ স্টার হোটেলে রাত্রীযাপন করে। রায়হান বাদশা মৃত্যুকালে তার চাচা ওবায়দুর রহমানের কাছে তার মৃত্যুর জন্য প্রতিবেশী ওই যুবককে দায়ী করেছে। যা তার চাচা ওবাইদুর রহমান কথাগুলো মোবাইলে ধারণও করেছে। বগুড়া অভিজাত হোটেলে থাকার ম্যানি রিসিভ তার কাছ থেকে উদ্ধার করে। তার চাচা ধারণকৃত রেকর্ড সহ ম্যানি রিসিভ থানায় জমা দিয়েছে। এ সংক্রান্তে তার বাবা থানায় অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা দায়ের করেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে থানা অফিসার ইনচার্জ হাসান আলী জানান, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর পরবর্তি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।