ধামইরহাটে গৃহবধুকে ধর্ষণের চেষ্টায় আটক

296

 

জাহিদ হাসান, ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ- নওগাঁর ধামইরহাটে প্রতিবেশী এক লম্পটের কু-প্রস্তাবের অভিযোগ গ্রামের মন্ডলকে দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে গৃহবধুকে ধর্ষণের চেষ্টা ঘটনার ঘটেছে। ভুক্তভোগীর চিৎকার শুনে স্বামী নিজেই ঘটনাাস্থলে উপস্থিত হয়ে স্ত্রীকে উদ্ধার করেছেন।

এ বিষয়ে ধামইরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধামইরহাট থানার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ৯ জানুয়ারী সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে উপজেলার জগদল ঘোনাপাড়া (মাস্টারপাড়া) গ্রামের গোলাম মোস্তফার স্ত্রী (৩২) বাড়ীর নিকট দোকানে যান, সেখান থেকে বাড়ীতে এসে দরজা খোলা দেখলে সন্দেহ হয় গৃহবধুর, এ সময় ওঁৎ পেতে থাকা একই গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে বাদল হোসেন (৩৮) গৃহবধুকে জাপটে ধরে, এ সময় নিজেকে রক্ষা করতে গৃহবধু ২য় তলায় ঘরে যান এবং স্বামীকে ফোন করেন। লম্পট বাদল হোসেন সেখানেও দ্রুত গিয়ে গৃহবধুকে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করলে আকস্মিক গৃহবধুর স্বামী গোলাম মোস্তফা ঘটনাস্থলে এসে স্ত্রীকে উদ্ধার করে।

ঘটনার বিষয়ে গ্রামবাসী সমবেত হলে ও এই সংবাদ দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে আসামীর লোকজন লম্পট বাদল হোসেনকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলে গ্রামবাসী ও থানা পুলিশ তা ব্যর্থ করে দেয় এবং লম্পট বাদলকে পুলিশ হেফাজতে নেয়। এ বিষয়ে ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে ধামইরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
ধামইরহাট থানার ওসি আবদুল মমিন “দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন” কে জানান, বাদী তার স্বামীসহ থানায় এসে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ করলে নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে এবং আটককৃত আসামীকে কোর্টে প্রেরণকরা হয়েছে।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।