জয়পুরহাটে শিশু ধর্ষণের মিথ্যা মামলায় বাদীর ৫ বছরের কারাদন্ড

258
এস এম মিলন জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাটে শিশু ধর্ষণের মিথ্যা মামলা করার দায়ে মোরশেদুল সরকার নামে এক ব্যক্তিকে ৫ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। সোমবার বিকেলে জয়পুরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মোঃ রুস্তম আলী এক জানর্কীন আদালতে এ রায় দেন। দন্ডপ্রাপ্ত মোরশেদুল সরকার জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার ভূগোইল গ্রামের খয়রাত জামানের ছেলে।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ৪ এপ্রিল বাক-প্রতিবন্ধি কন্যা শিশুকে ধর্ষনের অভিযোগে ওই শিশুর বাবা মোরশেদুল বাদী হয়ে একই গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলের মেহেদী হাসানের(৩৪) বিরুদ্ধে কালাই থানায় মামলা দায়ের করেন। এক মাস পর ৩১মে পুলিশ আদালতে এ মামলার অভিযোগ পত্র দাখিল করে।
আদালতে আইনজীবিদের পাল্টাপাল্টি যক্তিতর্ক এবং বাদী ও স্বাক্ষীদের জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে জানা যায়, মামলার আসামী মেহেদী হাসানের সাথে বাদী মোরশেদুলের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিল বলে মেহেদী হাসানকে শাস্তি দিতেই এমন মিথ্যা মামলা করা হয়েছে। ধর্ষনের এমন মিথ্যা মামলা করায় মোরশেদুলকে ৫ বছরের কারাদন্ড ও  একই সাথে এ মামলা থেকে মেহেদী হাসানকে অব্যাহতির আদেশ দেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক।
এ মামলায় আসামী পক্ষের আইনজীবি এ্যাডভোকেট হেনা কবীর ও বাদী পক্ষের সরকারি আইনজীবি এ্যাডভোকেট ফিরোজা চৌধূরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।
খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।