মহাস্থানে ভ্রাম্যমান আদালতে ৪জন চাল ব্যবসায়ীকে জরিমানা

218

রবিউল ইসলাম, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় লাইসেন্স বা পারমিট ছাড়া ধান ও চাল মজুদ করার জন্য ৪জন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১ টা থেকে ১টা পর্যন্ত পরিচালিত হওয়া এক অভিযানে এই জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালত পরিচালনা করেন শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর কবীর।

ভ্যাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকালে ধান ও চালের বাজার পরিস্থিতি পরিদর্শনে একটি অভিযান পরিচালনা করেন শিবগঞ্জ ইউএনও। এ সময় লাইসেন্স ছাড়াই ধান ও চাল মজুদ করার দায়ে আদালত বসান তিনি। এতে তিন জনকে জরিমানা করা হয়। আর একজনকে নিষিদ্ধ প্লাাস্টিকের বস্তায় চাল সংরক্ষণে দায়ে অর্থদণ্ড দেন আদালত। অর্থদণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে মজুদের পারমিট না থাকায় মেসার্স সেবা ট্রেডার্স ও মা লক্ষ্মী চাল ঘরকে পাঁচ হাজার টাকা এবং মিজান চাল ঘরকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আর প্লাস্টিকের বস্তা রাখার দায়ে রফিকুল চাল ঘরকে এক হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত।

নির্বাহী হাকিম ও ইউএনও আলমগীর কবীর বলেন, পারমিট ছাড়াই ধান ও চাল মজুদ করার অপরাধে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। চলমান চাউলের বাজার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। এ সময় অভিযানে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা খন্দকার আবুল বাশার, ওসি (এলএসডি) ফারুক হোসেন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।