শিবগঞ্জে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক আটক

334

রবিউল ইসলাম রবি, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ- বগুড়ার শিবগঞ্জে এক বিধবা প্রতিবন্ধী গৃহকধুকে (২৫) নারী ধর্ষণের শিকার হয়ে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় থানায় স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ মোট ৪ জনের নামে মামলা দায়ের করেছেন ঐ ভুক্তভোগী নারীর মা। বুধবার (০৬ জানুয়ারি) দিনগত রাত ২টায় ধর্ষক বাদলকে আটক করেছে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ।
এর আগে উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের গনক পাড়া (পূবপাড়া) গ্রামে ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটলে স্থানীয় ইউপি সদস্য জাহিদুলের সহযোগীতায় ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা হয় বলে জানান ভুক্তভোগী নারী। দেয়া হয় প্রাণ নাশের হুমকিও।

অবশেষে ধর্ষণের শিকার প্রতিবন্ধী নারীর মা বুধবার রাতে স্থানীয় ঐ ইউপি সদস্যসহ ৪ জনের নামে থানায় মামলা করলে রাতেই ধর্ষক বাদলকে আটক করে পুলিশ।
এ বিষয়ে ধর্ষণের শিকার ঐ নারীর মা বলেন, আমি থানায় অভিযোগ দেওয়া পর থেকেই ইউপি সদস্য জাহিদুল ও তার লোকজন আমাকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে, আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

ধর্ষনের শিকার ঐ প্রতিবন্ধী নারী বলেন, বাদল আমাকে ভয়-ভীতি দেখিয়েছে। আমি কাউকে কিছু বললে, সে আমাকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দিয়েছে।

মামলার পূর্বে ইউপি সদস্য জাহিদুল তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বাদল আমার কেউনা, আমি বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করেছি মাত্র।

শিবগঞ্জ থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান এ প্রতিবেদককে বলেন, ধর্ষণের শিকার নারীর মা বুধবার রাতে ধর্ষক বাদল ও ইউপি সদস্য জাহিদুল ইসলামসহ ৪ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করলে ধর্ষককে আটক করা হয়। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।