বগুড়া সদরে ২৬ সেপ্টেম্বর ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

293

সরকোরের করোনা ভাইরাসকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বগুড়া সদর উপজেলায় মোট ৪৬ হাজার ৬০৬ জন শিশুকে পক্ষকাল ব্যাপী ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। করোনা ভাইরাসের কারনে এবার দুই সপ্তাহে চার দিন করে মোট আট দিনে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হচ্ছে। আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার থেকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। জাতীয় ভিটামিন এ’প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়া সদর উপজেলাস্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তার কার্যালয়ে উপজেলা অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভায়আলোচকবৃন্দ তথ্যগুলো ধরেন।

সভায় প্রদান অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান সফিক। বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডাঃ সমির হোসেন মিশু’র সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবির। বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন বগুড়া সদরের মেডিকেল অফিসার ডাঃআসমা হক ও ডাঃ ইফতেখার হায়দার, কৃতি ফুটবলার সাফিনুর রহমান সম্রাট, স্বেচ্ছাসেবী মাসুদুর রহমান বাপ্পি, এমটি (ইপিআই) মোতাহার হোসেন, প্রধান সহকারি শামীমা আকতারসহ সদর কার্যালয়ের কর্মকর্তাগণ।

সভায় বক্তারা বলেন, ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার জাতীয় ভিটামিন এ’প্লাস ক্যাম্পেইন শুরুর দিনে থেকে শেষ পর্যন্ত সফলে একযোগে স্বেচ্ছাসেবী, চিকিৎসকদের সাথে বগুড়া সদর উপজেলার প্রশাসনও কাজ করবে। প্রতিটি এলাকার মসজিদ ও অন্যান্য উপাসনালয়ে ভিটামিন এ’প্লাস ক্যাম্পেইন সম্পর্কে জানাতে অনুরোধ করা হয়। স্বাস্থ্যবিধিমেনে শিশুদের (৬ থেকে ১১ মাস এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়স) ভিটামিন ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

বগুড়া সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের ৩৩টি ওয়ার্ডে ২৬৫টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ভিটামিন খাওয়ানো হবে। (৬ থেকে ১১ মাস বয়সী শিশু ৫ হাজার ৭৫৪ জন ও ১২থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশু রয়েছে ৪০ হাজার ৮৫২ জন। প্রতিটি কেন্দ্রে স্বেচ্ছাসেবী বাযারা ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনে থাকবেন তাদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত ও বিশেষট্রেনিং করেই দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে এবার।

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক প্রত্যাশা প্রতিদিন এর দায়ভার নেবে না।